বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:১৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ভাঙ্গুড়ায় দুগ্ধজাত ক্ষুদ্র শিল্পের সফল উদ্যোক্তা কলেজ ছাত্র অপু ঘোষ ভাঙ্গুড়ায় নতুন ইউএনও’র যোগদান- জ্ঞানের নিষ্প্রভ বাতিঘর কি আবার আলোকিত হবে ? বুয়েটকে জঙ্গিবাদের আখড়া বানানো যাবে না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ভাঙ্গুড়ায় জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে অনলাইন গরুর হাট ! মাসে কেনাবেচা ৬ কোটি টাকা ভাঙ্গুড়ায় জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে অনলাইন গরুর হাট ! মাসে কেনাবেচা ৬ কোটি টাকা ভাঙ্গুড়ায় জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে অনলাইন গরুর হাট ! মাসে কেনাবেচা ৬ কোটি টাকা ভাঙ্গুড়া প্রাণি সম্পদ অফিসের নানা জনপ্রিয় কর্মসুচী ! পাবনা জেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক তৌফিক আর নেই ভাঙ্গুড়ায় গোদোহন সহজিকরণে বিনামুল্যে মিল্কিং মেশিন বিতরণ  ভাঙ্গুড়ায় প্রাথমিকে শিক্ষক সমন্বয় বদলি নেই! শ্রেনি বিন্যাসে দরকার বহুতল ভবন

খালেদার মুক্তি দাবিতে ১৪ অক্টোবর বিএনপির অনশন

অনলাইন ডেস্ক:
  • আপডেটের সময় : মঙ্গলবার, ১০ অক্টোবর, ২০২৩
  • ৪২ সময় দর্শন

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার উন্নত চিকিৎসা এবং নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে আগামী ১৪ অক্টোবর নয়াপল্টনে তিন ঘণ্টার অনশন করবে বিএনপি। সোমবার বিকেলে নয়াপল্টনে অনুষ্ঠিত সমাবেশ থেকে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন। বেলা ১১টা থেকে তিন ঘণ্টার ওই অনশন কর্মসূচি পালনের জন্য তিনি সবার প্রতি আহ্বান জানান।

প্রধানমন্ত্রীর সমালোচনা করে তিনি বলেন, তার কথা শুনলে মনে হয় আমরা রাজতন্ত্রে আছি। দেশের মালিক তিনি। খালেদা জিয়ার কিছু হলে সরকারকে দেশের জনগণ ক্ষমা করবে না বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

ঢাকা মহানগর উত্তরের ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক অধ্যাপক ফরহাদ হালিম ডোনারের সভাপতিত্বে আমিনুল হক ও লিটন মাহমুদের সঞ্চালনায় এতে বক্তব্য রাখেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ড. আব্দুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, বেগম সেলিমা রহমান, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের আহ্বায়ক আব্দুস সালাম, ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, শামসুজ্জামান দুদু, অ্যাডভোকেট আজম খান, আবুল খায়ের ভূঁইয়া, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নাল আবদীন ফারুক, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, প্রচার সম্পাদক শহিদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক রকিবুল ইসলাম বকুল, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপু, আন্তর্জাতিক বিষয়ক কমিটির সদস্য ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেন, যুবদলের সভাপতি সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদ, মুক্তিযোদ্ধা দলের সাদেক খান, ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রাশেদ ইকবাল খান প্রমুখ
দুপুরের পর থেকেই নয়াপল্টন ও এর আশপাশের এলাকা বিএনপি নেতাকর্মীদের উপস্থিতিতে সরগরম হয়ে ওঠে। দুপুর দুইটায় আনুষ্ঠানিকভাবে কর্মসূচি শুরু হওয়ার কথা থাকলেও তা দেরিতে শুরু হয়। রাজধানীর বিভিন্ন ইউনিটের ছোট ছোট মিছিল আসে। সেøাগানে সেøাগানে মুখরিত হয়ে উঠে নয়াপল্টন। হাতে ব্যানার, ফেস্টুন, প্লেকার্ড দেখা যায়। লোকারণ্য হয়ে যায় কাকরাইল থেকে ফকিরাপুল এলাকা।

এ সময় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বেগম খালেদা জিয়াকে বিদেশে পাঠানোর সুযোগ নেই বলে প্রধানমন্ত্রী যে মন্তব্য করেছেন, তা দেশের জনগণ বুঝে গেছে। জনগণ এত বোকা নয়। সোমবার খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে উন্নত চিকিৎসার দাবিতে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ বিএনপি আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার উন্নত চিকিৎসা এবং নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে আগামী ১৪ অক্টোবর নয়াপল্টনে অনশন করবে বিএনপি। সমাবেশ থেকে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন। তিন ঘণ্টার ওই অনশন কর্মসূচি পালনের জন্য তিনি সবার প্রতি আহ্বান জানান।

মির্জা ফখরুল বলেন, দেশের মানুষ পরিষ্কার করে বলতে চায়, খালেদা জিয়ার কিছু হলে তাদের ছাড় দেওয়া হবে না। তিনি আরও বলেন, খালেদা জিয়ার অপরাধ তিনি দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিয়েছিলেন। বিরোধী দলের আন্দোলন মেনে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবি মেনে নিয়েছিলেন।

আওয়ামী লীগ বর্তমানে কোনো রাজনৈতিক দল নয় মন্তব্য করে মির্জা ফখরুল বলেন, তারা ফ্যাসিস্ট সরকারের ধারক-বাহকে পরিণত হয়েছে। বিএনপি নেতারা যাতে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে না পারে সেজন্য মিথ্যা মামলা দিয়ে সাজা দেওয়া হচ্ছে। সাজা দিয়ে আন্দোলন বন্ধ করা যাবে না বলে উল্লেখ করেন তিনি। বিএনপি মহাসচিব আরও বলেন, এক-একটি সাজায় হাজার হাজার নেতাকর্মী  তৈরি হচ্ছে, তাতে রাজনীতি থেকে দূরে থাকা নয় বরং জনগণকে সঙ্গে নিয়ে সরকার পতনের আন্দোলন আরও জোরদার হবে। প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে মির্জা ফখরুল বলেন, তার কথা শুনে মনে হয়, আমরা কোনো রাজতন্ত্রে বসবাস করছি। সবকিছুর মালিক তিনি।

খালেদা জিয়ার চিকিৎসা বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এক মন্তব্যের সমালোচনা করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস বলেন, ‘এই সরকার কোনো মানবিক সরকার নয়, এই সরকার দানবীয় সরকার। কারণ একজন প্রধানমন্ত্রী হয়ে শেখ হাসিনা এমনভাবে কথা বলতে পারেন না। কোনো ধর্মের মানুষই কোনো মৃত্যুশয্যার মানুষকে নিয়ে এই মন্তব্য করতে পারে না।’

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ^র চন্দ্র রায় বলেন, ‘আমাদের একটাই দাবি, সেটা হলো শেখ হাসিনার নিঃশর্ত পদত্যাগ। তিনি আবারও বিচার বিভাগকে কাজে লাগিয়ে ’১৮ ও ’১৪ সালের মতো ফাঁকা মাঠে গোল দিয়ে নির্বাচন করতে চান। জয়ী হতে চান।’ বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান বলেন, ‘বেগম খালেদা জিয়া এ দেশের ভোটে নির্বাচিত প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী। এই আওয়ামী লীগ তা সহ্য করতে পারে না। তাই তাকে কারাগারে আটক করে রেখেছে। তিনি বলেন, ‘এই সরকার গণতন্ত্রকামী মানুষকে সহ্য করতে পারে না। এই সরকার দেশে একদলীয় শাসন প্রতিষ্ঠা করছে। বিরোধী দলীয় নেতাকর্মীদের ওপর জুলুম-নিপীড়ন করে শেষ করে দিতে চায়।

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
২০২০© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ*
ডিজাইন - রায়তা-হোস্ট সহযোগিতায় : SmartiTHost
smartit-ddnnewsbd