মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ০১:৫৩ অপরাহ্ন

সকল সংস্থার সমন্বয়ে নতুন মাস্টারপ্লান আলোচনা সভায় ডিএসসিসি মেয়র

অনলাইন ডেস্ক:
  • আপডেটের সময় : শনিবার, ৭ নভেম্বর, ২০২০
  • ৫৬ সময় দর্শন

সকল সংস্থার মাস্টারপ্ল্যান সমন্বয় করে ‘ইন্টিগ্রেটেড মাস্টারপ্লান ফর ঢাকা সিটি’ প্রণয়ন করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস। জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদ ঘোষিত বিশ্ব নগর দিবস উপলক্ষে গতকাল নগর ভবন হতে জুম প্লাটফর্মের মাধ্যমে ইঞ্জিনিয়ার ইনস্টিটিউশন, বাংলাদেশ এর ঢাকা কেন্দ্র কর্তৃক আয়োজিত কারিগরি আলোচনা সভায় অংশ নিয়ে এ কথা বলেন তিনি। ডিএসসিসি মেয়র বলেন, বিভিন্ন সংস্থা তাদের কার্যক্রম কেন্দ্রিক মাস্টার প্ল্যান প্রণয়ন করেছে। কিন্তু সেগুলো প্রকল্প কেন্দ্রিক। আমরা কোনটাই বাদ দিচ্ছি না। আমরা সবগুলোকে সমন্বয় করে একটা ‘ইন্টিগ্রেটেড মাস্টারপ্লান ফর ঢাকা সিটি’ প্রণয়ন করতে যাচ্ছি। সেটার মাধ্যমে আমরা আমাদের সেবাগুলো যেমনি নিশ্চিত করব তেমনি একটি আধুনিক ঢাকা গড়ার লক্ষ্যে এগিয়ে যেতে পারব।

 

এ সময় ডিএসসিসি মেয়র ব্যারিস্টার শেখ তাপস স্থানীয় সরকার (সিটি কর্পোরেশন) আইন-২০০৯ এ বর্ণিত কর্পোরেশনের কার্যাবলী উল্লেখ করে বলেন, দুঃখের সাথে বলতে হয়, একটি নগরের সকল কার্যক্রমকে একটি সমন্বিত জায়গায় আমরা আজ অবধি আনতে পারি নাই। সবকিছুই হচ্ছে বিভিন্ন প্রকল্প কেন্দ্রিক, বিভিন্ন সংস্থা কেন্দ্রিক। খন্ড খন্ড করে করা হচ্ছে। সেভাবে করতে গেলে আমরা কোনদিনও আশু লক্ষে পৌঁছাতে পারব না। একটি জায়গায় আমাদেরকে আগে আসতে হবে, কারা মূল দায়িত্ব পালন করবে আর তার সাথে অন্যরা কিভাবে সমন্বয় করবে। এটা না করা পর্যন্ত আমরা ঢাকা শহরকে একটি পর্যায়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য কোনদিনও অগ্রগতি সাধন করতে পারব না। এমআরটি (মাস রেপিড ট্রানজিট) বাস্তবায়নকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যুগান্তকারী পদক্ষেপ উল্লেখ করে শেখ তাপস বলেন, এমআরটির মাধ্যমে আমরা একটি আধুনিক নগরীর পর্যায়ে চলে যাব। ডিএসসিসি মেয়র ব্যারিস্টার শেখ তাপস এ সময় আরও বলেন, ঢাকা শহরে জনসংখ্যার যে চাপ, তা আমরা কিভাবে বিন্যাস করব, নিয়ন্ত্রণ করব, সে বিষয়টা এখনো কেউ ভাবছে না। সে জায়গাটাও আমাদেরকে চিন্তা করতে হবে।

 

আইইবি ঢাকা কেন্দ্রের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী মোঃ আবুল হোসেনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী কাজী খাইরুল বাশারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মোঃ আব্দুস সবুর এবং সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী মোঃ শাহাদৎ হোসেন বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন। ৯ অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালতগুলোর ধারাবাহিক নিয়মিত উচ্ছেদ অভিযান ও এডিস মশার লার্ভা প্রজননস্থল শনাক্তকরণ কার্যক্রমের অংশ হিসেবে গতকাল পোস্তগোলা, ধানমন্ডি ও ডেমরা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। ডিএসসিসির সম্পত্তি কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান পোস্তগোলার আইজি গেইটের টিএন্ডটি অফিসের চারপাশে নয়টি অস্থায়ী স্থাপনা ও অবৈধভাবে দখল করে রাখা ভ্যান স্ট্যান্ড উচ্ছেদ করেন।

 

এ সময় অবৈধ স্থাপনা গড়ে তুলে সরকারি জায়গা অবৈধ দখলে রাখায় তিনটি মামলা দায়ের ও নগদ ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এদিকে মশক নিয়ন্ত্রণ অভিযানে ১৫ নম্বর ওয়ার্ডে ৩৩ স্থাপনা পরিদর্শন করে দু’টি স্থাপনায় এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় দু’টি মামলায় নগদ ৬০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। ৬৬ নম্বর ওয়ার্ডের বামৈল বাজার এলাকায় ৫৫টি স্থাপনা পরিদর্শন করে পাঁচটি স্থাপনায় এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় পাঁচটি মামলায় ১৮ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
২০২০© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ*
ডিজাইন - রায়তা-হোস্ট সহযোগিতায় : SmartiTHost
smartit-ddnnewsbd