বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১২:০৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ভাঙ্গুড়ায় ইউএনও’র ভাষা চর্চা ক্লাবে শিক্ষার্থীদের উপচে পড়া ভিড়! ভাঙ্গুড়ায় গ্রাহকের সঞ্চয়ের টাকা নিয়ে উধাও এনজিও সরকারি ভাঙ্গুড়া ইউনিয়ন স্কুলে ভর্তি অনিয়ম ! ভুগছেন শিক্ষার্থী-অভিভাবক! অধ্যক্ষকে শোকজ ডোনাল্ড লুর হাই প্রোফাইল সফর- অংশগ্রহণমূলক আগামী সংসদ নির্বাচন দেখতে চায় যুক্তরাষ্ট্র দেশের উন্নয়নে দিশেহারা হয়ে বিএনপি আবোল তাবল বকছে,খালেদা জিয়ার কথায় দেশ চলবে এটা বিএনপির দু:স্বপ্ন – এমপি মকবুল ভাঙ্গুড়ায় তীব্র শীতে এক কৃষকের মৃত্যু আজ ১০০ মহাসড়ক উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী প্রার্থিতা জমা নেয়ার পর হঠাৎ নির্বাচন বন্ধ করে দিলেন প্রধান শিক্ষক বিএনপির সংসদ সদস্যরা জমা দিলেন পদত্যাগপত্র ভাঙ্গুড়ায় মেয়াদোত্তীর্ণ কোভিড-১৯ টিকা পুশ নিয়ে জটিলতা! অধিদপ্তরের মেয়াদ বৃদ্ধি

একজন অডিটর দিয়ে চলছে চৌহালী হিসাব – রক্ষণ অফিস

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
  • আপডেটের সময় : রবিবার, ১৮ অক্টোবর, ২০২০
  • ৩৯১ সময় দর্শন

মজিব বর্ষের ডিজিটাল যুগেও শুন্য পদের কবলে পরেছে চৌহালী উপজেলা হিসাব রক্ষণ অফিস। দপ্তরে প্রজপ্ত ফাইল আছে জনবল নেই এজি অফিসে। সিরাজগঞ্জের চৌহালীর এ দপ্তরটি শুন্য পদের কবলে পরে নিজেই জরজরিত থাকায় সকল দপ্তরের বেতন ভাতাসহ সকল বিল নিয়ে বিপাকে। উপজেলার গুরুত্বপুর্ণ পদে কর্মকর্তা-কর্মচারি না থাকায় এর দাপ্তরিক কার্যক্রমে অচলাবস্থা সৃষ্টি হয়েছে,নজর নেই কর্তৃপক্ষের। জানা গেছে, উপজেলা হিসাব রক্ষণ কর্মকর্তা আব্দুল হামিদ অনত্র বদলী হওয়ার সময় শাহজাদপুর হিসাবরক্ষণ অফিসার ইমরোজিত সরকার গত জুন ২০১৯ সাল থেকে অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

 

বিভাগের আওতাধীন উপজেলা পর্যায়ে একজন উপজেলা এজি কর্মকর্তা, ৫ জন ষ্টাফ থাকার কথা তাকলেও ১জন অডিটার দিয়ে চলছে চৌহালীর হিসাবরক্ষণ অফিসের কার্যক্রম। উপজেলা পর্যায়ে সবচেয়ে গুরুত্বপুর্ণ হিসাব রক্ষণ অফিস ও গুরুত্বপুর্ণ পদ গুলো দির্ঘ দিন ধরে শুন্য রয়েছে। নিরাশনের কোন লক্ষন নেই। দাপ্তরিক কাজে আসা ভুক্তভোগিরা জানান, উপজেলা এজি অফিস থাকলেও গুরুত্বপুর্ণ পদে কোন কর্মকর্তা নেই, দাপ্তরিক কাজ এবং অন্যান্য সেবাও নেই। এতে উপজেলার সকল কর্মকর্তা কর্মচারির বেতন-ভাতাসহ বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প বিল মারাত্বক ভাবে ব্যাহত সহ এলাকার উন্নয়নের লক্ষমাত্রা অর্জিত না হওয়ার আশংকা দেখা দিয়েছে। চৌহালী উপজেলা পরিষদের গুরুত্বপুর্ণ দপ্তর এটি।

 

কর্মকর্তার পদ শুন্য থাকায় অফিসের দৈনন্দিন কার্যক্রমে অচলাবস্থা দেখা দিয়েছে। এলাকার ভুক্তভোগীসহ সকল মহলের অভিযোগ কর্মকর্তা না থাকায় উন্নয়ন মুলক কাজ ও ফাইলপত্র নিয়ে আমাদের কষ্ট পাহাড় সমান,দপ্তর সচলে কেউ কথা রাখছে না। উপজেলার ৭টি ইউনিয়নে প্রায় তিনশতাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান,সরকারি বেসরকারি ও উন্নযন প্রকল্পর ফাইলপত্র স্বাক্ষর করার মত অফিসার নেই। ১জন অডিটর ও ১জন মাস্টার রোলে পিয়ন দিয়ে চলছে এ দপ্তর। এজি অফিস সুত্রে জানা গেছে, অডিটর আবুল কালাম এদপ্তরের হাল ধরে রেখেছেন। এ দপ্তরে চলতি দায়িত্ব প্রাপ্ত অফিসার ইমরোজিত সরকার কাগজে কলমে হয়েছে, তিনি নিজ দপ্তরে থেকে চৌহালী দেখশন করছেন। ফাইল পত্র একত্র করে শাহজাদপুর গিয়ে স্বাক্ষর আনতে ২/৩দিন সময় ব্যায় হয়,সে সময় অফিস বন্ধ থাকে। ১জন অডিটর দিয়ে কোন রকম চলছে চৌহালী উপজেলা হিসাব রক্ষণ অফিসের কার্যক্রম।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর
২০২০© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ*
ডিজাইন - রায়তা-হোস্ট সহযোগিতায় : SmartiTHost
smartit-ddnnewsbd