শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৯:৩২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ভাঙ্গুড়ায় ইউএনও’র ভাষা চর্চা ক্লাবে শিক্ষার্থীদের উপচে পড়া ভিড়! ভাঙ্গুড়ায় গ্রাহকের সঞ্চয়ের টাকা নিয়ে উধাও এনজিও সরকারি ভাঙ্গুড়া ইউনিয়ন স্কুলে ভর্তি অনিয়ম ! ভুগছেন শিক্ষার্থী-অভিভাবক! অধ্যক্ষকে শোকজ ডোনাল্ড লুর হাই প্রোফাইল সফর- অংশগ্রহণমূলক আগামী সংসদ নির্বাচন দেখতে চায় যুক্তরাষ্ট্র দেশের উন্নয়নে দিশেহারা হয়ে বিএনপি আবোল তাবল বকছে,খালেদা জিয়ার কথায় দেশ চলবে এটা বিএনপির দু:স্বপ্ন – এমপি মকবুল ভাঙ্গুড়ায় তীব্র শীতে এক কৃষকের মৃত্যু আজ ১০০ মহাসড়ক উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী প্রার্থিতা জমা নেয়ার পর হঠাৎ নির্বাচন বন্ধ করে দিলেন প্রধান শিক্ষক বিএনপির সংসদ সদস্যরা জমা দিলেন পদত্যাগপত্র ভাঙ্গুড়ায় মেয়াদোত্তীর্ণ কোভিড-১৯ টিকা পুশ নিয়ে জটিলতা! অধিদপ্তরের মেয়াদ বৃদ্ধি

ভাঙ্গুড়ায় নজর কেড়েছে কৃষিবিদের ছাদ বাগান

সিরাজুল ইসলাম আপন:
  • আপডেটের সময় : শুক্রবার, ২ অক্টোবর, ২০২০
  • ১৯৮ সময় দর্শন

পথ চারিদের নজর কেড়েছে কৃষিবিদের ফ্যাক্টরির গোডাউনের ছাদে যার হাতে করা ফলদ বাগান। তিনি হলেন কৃষিবিদ পার্থ প্রতিম সাহা। বয়স ৪৪। বাড়ি পাবনা জেলার ভাঙ্গুড়া উপজেলার অষ্টমনিষা গ্রামে।তিনি ২০০৬ সালে অষ্টমনিষা ইউনিয়নের হরিহরপুর গ্রামে বংশী মহারাজ এন্ড এগ্রো টেক্নোলজী নামে একটি ফ্যাক্টরি ও গোডাউন তৈরি করে ব্যবসা শুরু করেন এবং পাশা পাশি বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় ময়মনসিংহ থেকে ২০০৯ সালে বি.এস.সি ফিশারীজ (অনার্স) এম.এস.ইন একোয়াকালচার (বি.এ.ইউ) পাস করেন।২০১৮ সালে নিজ ফ্যাক্টরিতে ১২ শতক গোডাউনের ছাদের উপর দৃষ্টি নন্দন তৈরি বাগান করেন। স্থানীয় বৃক্ষ মেলা থেকে বিভিন্ন ধরনের গাছের চারা কিনে ছাদের উপর তৈরী করেছেন বাগান। বাগানের গাছ গুলিকে অবসর সময়ে দেখা শোনা করেন তিনি। বাগানের কাজে সহযোগিতা করেন তার সহযোগি সুজন কুমার। মাটি ও জৈব্য সার মিশানের কাজ তিনি নিজেই করেন বলে জানান।ছাদের বাগানে রয়েছে বেশ কয়েক প্রজাতির লেবু, কমলা,পেঁপে, মালটা, আপেল ,ওষুধি গাছ যেমন, ঘৃত কুমারী, তুলসী, এমনকি ডায়াবেটিক নিয়ন্ত্রণকারী গাছও।

 

সরেজমিন কৃষিবিদ পার্থ প্রতিম সাহার ফ্যাক্টরির গোডাউনের ছাদে গিয়ে দেখা যায়, ১০০টির মতো অর্ধেক করে কাটা তেলের ড্রাম।তার মধ্যে মাটির সাথে মেশানো হয়েছে জৈবিক সার। ছোট বড় বেশ কিছু মাটির টব। সবগুলিতে লেবু ,ফলের গাছ, ও ওষুধি গাছ শোভা পাচ্ছে। গাছে ধরেছে অসংখ্য লেবু। বিশেষ করে চায়না স্কটলেবু একটি গাছে শতধিক লেবু ধরেছে যা বাগানের সৌন্দর্য্য আরও বাড়িয়ে তুলেছে। আর গাছের পোকামাকড় থেকে রক্ষা পেতে ন্যাপথন বেধে দেওয়া হয়েছে। অবসর সময়ে সুজন কুমার ও এই বাগানের পরিচর্যা করেন।


এসময় কৃষিবিদ পার্থ প্রতিম সাহা জানান, কম বেশি আমরা সকলেই লেবু পছন্দ করি।এক একটি লেবু গাছে ৭০ থেকে ১০০ টি লেবু ধরে বলে জানান তিনি।এর সাথে বিভিন্ন ধরণের ফুল এবং ওষুধি গাছও রয়েছে।এ গাছ গুলো ড্রামে লাগানো হয় একটা ড্রাম ১হাজার থেকে ১হাজার ২শ টাকায় কিনে সেখানে ২ টি গাছ লাগানো হয় বলেও জানান তিনি।

এবিষয়ে উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ এনামুল হক জানান, ফ্যাক্টরির গোডাউনের ছাদে বাগান তৈরি করা একটি সম্ভাবনাময় বিষয়।আমরা বাসা বাড়ির ছাদে ও ভাসামান শব্জি চাষ করতে সব সময় জনসাধারণকে উপদেশ দিয়ে থাকি পাশা পাশি ফ্যাক্টরির গোডাউনের ছাদেও বাগান করলে এটা খুব ভালো হয়।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর
২০২০© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ*
ডিজাইন - রায়তা-হোস্ট সহযোগিতায় : SmartiTHost
smartit-ddnnewsbd